গাজীপুর জেলা আওয়ামীলীগের সম্পাদক হচ্ছেন সবুজ

0

আশরাফুল আলম সেলিমঃ জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে গাজীপুর জেলা আওয়ামীলীগের কমিটি অনুমোদন দিলেন দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এতে মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হককে সভাপতি ও সম্পাদক ইকবাল হোসেন সবুজকে মনোনীত করেন তিনি।

ইকবাল হোসেন সবুজ

ইকবাল হোসেন সবুজ

গত শনিবার (৮অক্টোবর) রাতে গণভবনে এক বৈঠকে সভানেত্রী এই নির্দেশনা দেন। দলের পক্ষ থেকে এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে বিষয়টি ঘোষণা করা হয়নি।

গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের নতুন কমিটি গঠন নিয়ে মাঠপর্যায়ে ব্যাপক কৌতুহল বিরাজ করছে। সভাপতি পদে কোনো পরিবর্তন আসছে না- তা আগেই নিশ্চিত ছিলো। তবে উৎসাহ আছে সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে। পরিবর্তনের পূর্বাভাস জেনে ওই পদে নতুন কে আসছেন- তা নিয়ে সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক আগ্রহ রয়েছে।

গত শনিবার রাতে গণভবনে এ সংক্রান্ত বৈঠক হয়। বৈঠকে গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন নিয়ে আলোচনা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গাজীপুরের জ্যেষ্ঠ নেতারা এবং আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির অনেকেই সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

আ ক ম মোজাম্মেল হক ও ইকবাল হোসেন সবুজ

আ ক ম মোজাম্মেল হক ও ইকবাল হোসেন সবুজ

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন এমন একজন কেন্দ্রীয় নেতা জানান, নতুন কমিটি গঠন এবং গাজীপুরে আওয়ামী লীগের আগামী দিনের তৎপরতা বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ কিছু নির্দেশনা দেন দলীয় সভানেত্রী। সভাপতি পদে কোনো পরিবর্তন না থাকলেও সাধারণ সম্পাদক পদে সবুজকেই মনোনিত করেন তিনি।

সূত্রটি আরো জানায়, শিগগিরই গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে সভাপতি- সম্পাদকের নাম ঘোষণা করা হবে। ইকবাল হোসেন সবুজ শ্রীপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান। তৃণমূল পর্যায় থেকে উঠে আসা এই রাজনীতিক একসময় ভাওয়াল সরকারি কলেজের ভিপি ছিলেন। নেতৃত্ব দিয়েছেন ছাত্রলীগ এবং যুবলীগেরও।

গাজীপুরের স্থানীয় একাধিক নেতাকর্মী জানান, ইকবাল হোসেন সবুজ দলের খুবই ত্যাগী নেতা হিসেবে সবার কাছে সমানভাবে পরিচিত। দলের নেতাকর্মীদের দুঃসময়ে তাঁকে সবসময় কাছে পাওয়া যায়। এমনকি বিগত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময়ে দলের নেত্রী শেখ হাসিনাকে কারাবন্দি করার সময়েও মাঠে ছিলেন সবুজ। নেত্রীর মুক্তির দাবিতে গাজীপুরের রাজপথে নেতাকর্মীদের নিয়ে আন্দোলনে সরব ছিলেন তিনি। দলের জন্য নিবেদিতপ্রাণ এবং নেতাকর্মীদের প্রতি নিখাদ ভালোবাসা আর ত্যাগের ফলশ্রুতিতেই দলের সভানেত্রী তাঁকে গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের মতো গুরুত্বপূর্ণ পদে আসীন করেছেন বলে মনে করেন অনেকে।

গাজীপুর টাইমস/১১/১০/১৬/০০৭

Share.

Comments are closed.